হোমনায় সীমানা জটিলতায় অনিশ্চিত মডেল মসজিদের নির্মান কাজ, স্থান পূন:নির্ধারনের দাবী এলাকাবাসির

হোমনায় সীমানা জটিলতায় অনিশ্চিত মডেল মসজিদের নির্মান কাজ, স্থান পূন:নির্ধারনের দাবী এলাকাবাসির

আব্দুল হক সরকার
কুমিল্লার হোমনায় সীমানা জটিলতায় অনিশ্চিচিত হয়ে পড়েছে উপজেলা মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের নির্মাণ কাজ। কবে নাগাদ এ কাজ শুরুহবে তাও নিশ্চিত করে বলতে পারছে না কর্তৃপক্ষ। এ দিকে মডেল মসজিদটির স্খান পরিবর্তের দাবী জানান এলাকাবাসি।
এলাকাবাসির দাবী সরকারের এত বড় একটি প্রকল্প একটি খোলামেলা জায়গায় না করে জমি অধিগ্রহনের মাধ্যমে কোন উম্মুক্ত স্থানে নির্মানের দাবী জানান।
জানাগেছে,প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অগ্রাধিকার প্রকল্পের আওতায় ধর্ম মন্ত্রণালয় কর্তৃক ২০১৫ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি দেশে ৫৬০টি মডেল মসজিদ নির্মাণের দায়িত্ব দেয়া হয় গণপূর্ত বিভাগকে।
পর্যায়ক্রমে প্রতি উপজেলায় মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র স্থাপন করা হবে। যার মধ্যে ৮শ’ মানুষ এক সঙ্গে নামাজ আদায় করার সুযোগ পাবেন। এ ছাড়াও এতে নারী-পুরুষের পৃথক অজু খানা ও নামাজের স্থান, পাঠাগার, গবেষণা কেন্দ্র, হজ্জ যাত্রীদের নিবন্ধন, পর্যটকদের আবাসন ব্যবস্থা, দাওয়াতি কার্যক্রম, হিফজ মাদ্রাসা, মক্তব, মৃত ব্যক্তির গোসলের ব্যবস্থা, মসজিদের ইমাম-মুয়াজ্জিনের আবাসন প্রকল্পসহ বহুমুখী ইসলামিক কার্যক্রম পরিচালিত হবে।
অফিস সূত্রে জানাগেছে, ২০১৯ সালের ১লা জুলাই, গণপূর্ত বিভাগ কর্তৃক ১৩ কোটি ৪১ লাখ ৮০ হাজার টাকা ব্যয়ে হোমনা উপজেলায় মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র নির্মানের কার্যাদেশ দেয়া হয়। কাজের মেয়াদ ছিল ১৮ মাস।
মসজিদ প্রকল্পে জমি অধিগ্রহন করে মসজিদ নির্মানের কথা শোনাগেলেও পরবর্তীতে হোমনা বাজার মসজিদ ভেঙ্গে এ মডেল মসজিদ নির্মান করার প্রস্তাব দেন কর্তৃপক্ষ। এবং ২০২০ সালের ১৭ সেপ্টেম্বর স্থানীয় সংসদ সদস্য সেলিমা আহমাদ মেরী এ মডেল মসজিদের নির্মান কাজের শুভ উদ্বোধন করেন।
কিন্ত উদ্বোধনের এক বছরে পার হলেও মসজিদ নির্মান কাজ শুরুই হয়নি।
সরেজমিনে গিয়ে জানাগেছে, প্রস্তাবিত মসজিদের জায়গা কাগজে থাকলেও জায়গাটি বর্গাকৃতি না থাকায় অর্থাৎ দৈর্ঘে প্রস্থে কম বেশী হওয়ায় সীমান জটিলতার সৃষ্টি হয়। দৈর্ঘে যে পরিমান জায়গার প্রয়োজন তার চেয়ে বেশী আছে, আবার প্রস্থে যে পরিমান জায়গার প্রয়োজন তাতে কম রয়েছে। একপাশে ব্যক্তি মালিকানাধীন বহুতল ভবন অপর পার্শ্ব বি-বাড়িয়া জেলার সীটের তিতাস নদীর জায়গা।
এ বিষয়ে হোমনা বাজারের এক ব্যবসায়ী মাওলানা আঃ মজিদ বলেন, মডেল মসজিদ নির্মানের জন্য বাজারের পুরানো মসজিদ ভেঙে ফেলায় অস্থায়ী একটি ঘরে নামাজ আদায় করতে হয়। এতে মুসল্লিদের ভোগান্তির শেষ নেই। কবে নাগাদ মসজিদ নির্মান করা হবে বা আদো হবে কিনা তা নিয়ে সন্দেহ দেখা দিয়েছে। উদ্বোধনের এক বছর পার হলেও কাজ শুরু হয়নি।
এ বিষয়ে ঠিকাদার জসিম উদ্দিন মুঠো ফোনে যুগান্তর প্রতিনিধিকে জানান, সীমানা জটিলতার কারনে কাজ শুরু করা যাচ্ছে না। জটিলতা নিরসন হলেই কাজ শুরু করা হবে।
এদিকে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও মসজিদ কমিটির সভাপতি রুমন দে যুগান্তরকে বলেন, মসজিদের সীমানা জটিলতা নিয়ে জেলা প্রশাসক স্থান পরিদর্শন করেছেন। এমপি মহোদয়ো চেষ্টা করছেন। সরকারের মেগা প্রকল্পের কাজ বন্ধ হতে পারেনা। প্রয়োজনে ডিজাইন পরিবর্তন করে প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হবে।
এ প্রসঙ্গে কুমিল্লা গণপূর্ত বিভাগ জানান, সীমানা জটিলতার কারনে মসজিদ নির্মান কাজ বিলম্ব হচ্ছে। ডিজাইন পরিবর্তন করে দ্রুত এর কাজ বাস্তবায়নের চেষ্ঠা চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *