হোমনায় লকডাউন কার্যকর করতে ইউনিয়ন ও ওয়ার্ডে কমিটিকে সক্রিয় ভূমিকা পালনের আহবান

হোমনায় লকডাউন কার্যকর করতে ইউনিয়ন ও ওয়ার্ডে কমিটিকে সক্রিয় ভূমিকা পালনের আহবান

দর্পণ ডেস্ক:
কুমিল্লার হোমনায় লকডাউনে
হাট-বাজারে জনসমাগম ঠেকাতে মন্ত্রনালয়ের নির্দেশমতে ইউনিয়ন-ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে কমিটি গঠন করা হয়েছে। লকডাউন কার্যকর করতে উক্ত কমিটিকে সক্রিয় ভূমিকা পালনের আহবান জানানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার উপজেলা মাসিক আইনশৃঙ্খলা কমিটির ভার্চুয়ালী সভায় এ আহবান জানানো হয়। ইউএনও রুমনদে এর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন,স্থানীয় সংসদ সদস্য সেলিমা আহমাদ মেরী,উপজেলা চেয়ারম্যান রেহানা বেগম, ওসি আবুল কায়েস আকন্দ,মেয়র এ্যাড. নজরুল ইসলাম সহ কমিটির সদস্যবৃন্দ।
সভায় জানানো হয় হাট-বাজার, চায়ের দোকান বা জনসমাগম হয় এমন স্থানে ভিড় কমাতে ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড পর্যায়ে দু’টি কমিটি গঠন করার নির্দেশনা দিয়েছে স্থানীয় সরকার বিভাগ।
জানাগেছে,মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) দেশের সব জেলা প্রশাসক (ডিসি), উপ-পরিচালক (স্থানীয় সরকার) এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের (ইউএনও) চিঠি পাঠিয়ে এ নির্দেশনা দিয়েছে স্থানীয় সরকার বিভাগ। চিঠিতে বলা হয়, গত ১০ জুলাই স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভায় কোভিড-১৯ পরিস্থিতি মোকাবিলা করার জন্য কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এ সিদ্ধান্তের আলোকে স্থানীয় সরকার বিভাগের মন্ত্রীর সভাপতিত্বে গত ২৫ জুলাই অনুষ্ঠিত সভায় নিম্নে উল্লেখিত ছকে বর্ণিত সেবাসমূহ প্রদানের জন্য ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সভার নির্দেশনা অনুযায়ী উল্লেখিত কমিটি দু’টি নিম্নরূপে গঠনপূর্বক এ বিভাগকে অবহিত করার জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হলো ইউনিয়ন কমিটিঃ
ইউনিয়ন কমিটিতে সভাপতি হিসেবে থাকছেন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান। সদস্যসচিব হিসেবে থাকছেন সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের সচিব। বাকি ১২ জন সদস্য হবেন- মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের একজন শিক্ষক, একজন বিশিষ্ট সমাজসেবক/স্থানীয় একজন গণ্যমান্য ব্যক্তি, একজন বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা, উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা, ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা, সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক, পরিবার কল্যাণ সহকারী, মাদরাসার একজন শিক্ষক, প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একজন শিক্ষক, ইউনিয়ন পর্যায়ে কর্মরত একজন এনজিও প্রতিনিধি, সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের দফাদার, ইউনিয়নের অন্তর্গত বৃহত্তম হাট/বাজারের ব্যবস্থাপনা কমিটির একজন প্রতিনিধি।
ওয়ার্ড কমিটিঃ
ওয়ার্ড কমিটিতে সভাপতি থাকবেন সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের সদস্য (মেম্বার) সদস্য হিসেবে থাকবেন- প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একজন শিক্ষক, একজন বিশিষ্ট সমাজসেবক/স্থানীয় একজন গণ্যমান্য ব্যক্তি, একজন মুক্তিযোদ্ধা, একজন মাদরাসার শিক্ষক, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য, একজন এনজিও প্রতিনিধি, পরিবার কল্যাণ পরিদর্শিকা, স্বাস্থ্য সহকারী, মসজিদের ইমাম, হাট/বাজারের ব্যবস্থাপনা কমিটির একজন প্রতিনিধি, কমিউনিটি হেলথ কেয়ার প্রোপাইটার, গ্রাম পুলিশ এবংআনসার-ভিডিপির একজন সদস্য।
চিঠিতে বলা হয়, কমিটি কাজের সুবিধার্থে এক বা একাধিক সদস্য কো-অপ্ট করতে পারবে। সদস্য নির্বাচনের ক্ষেত্রে কমিটির সভাপতির মতামত প্রাধান্য পাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *