তিতাসে জামিনে এসে বাদীর বাড়িতে হামলা ও ভাংচুরের অভিযোগ

তিতাসে জামিনে এসে বাদীর বাড়িতে হামলা ও ভাংচুরের অভিযোগ

তিতাস( কুমিল্লা) প্রতিনিধিঃ
কুমিল্লার তিতাস উপজেলায় মারামারির মামলায় জামিনে এসে বাদীর বাড়িতে হামলা ও ভাংচুরের অভিযোগ উঠেছে। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধায় উপজেলার বলরামপুর গ্রামের বাদী ফজিলাতুন্নেছার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।
সরেজমিনে গেলে বাদী ফজিলাতুন্নেছা জানান মাগরিব নামাজের পর আমি উঠানে দাঁড়িয়ে আমার স্বামীর সাথে মোবাইল ফোনে কথা বলার সময় আমার মামলার আসামী হামিদ মেম্বার,সাখাওয়াত,করিম,মুকবুল,আবু সাঈদ ও মোজাম্মেল হকসহ ১৫/২০ জন লাঠি সোঁটা নিয়ে আমার বাড়িতে এসে আমার বসত ঘরে হামলা করে ভাংচুর করে, আমার চিৎকার শুনে আশেপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে তারা চলে যায়। এঘটনায় আমি রাতেই থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছি। তবে হামিদ মেম্বার এ অভিযোগ অস্বীকার করেছে। আরেব আসামী সাখাওয়াত হোসেন বলেন,ঘটনার সময় বাড়িতেই ছিলাম না। কুমিল্লা থেকে বাড়িতে যাওয়ার পথে রাস্তায় থাকতেই এ ঘটনা শুনে বাড়িতে না যেয়ে রাস্তা থেকেই চলে আসি। কে বা কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে আমরা জানিনা।
তবে ওই গ্রামের হেলাল মিয়া জানান মঙ্গলবার মাগরিব নামাজের পর মামলার আসামীরা জামিনে এসে বাদীর বাড়িতে হামলা করছে বলে আমি শুনেছে।

এ বিষয়ে তিতাস থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুধীন চন্দ্র দাস বলেন বলরামপুর গ্রামে মারামারির ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে নাকি বাদীর বাড়িতে হামলা হয়েছে এমন একটি অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *